শেষ পর্যন্ত অসহায়, নাম পরিচয়হীন বৃদ্ধার শেষ আশ্রয়স্থল হলো বৃদ্ধাশ্রমে

তিতাস প্রতিনিধি।।

৯৪

শেষ পর্যন্ত অসহায়, নাম পরিচয়হীন বৃদ্ধার শেষ আশ্রয়স্থল হলো বৃদ্ধাশ্রমে। কুমিল্লা জেলার তিতাস উপজেলার মাছিমপুর খেলার মাঠে ফেলে যাওয়া বৃদ্ধা কাজল বেগমকে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার চর বেতাগৈর ইউনিয়নের চর কামাটখালীর মাতৃছায়া সমাজকল্যাণ সংস্থা ও বৃদ্ধাশ্রমে রাখার ব্যবস্থা করেন মানবিক সংগঠন ফ্রেন্ডস ক্লাব।
গতকাল তারা ফেলে যাওয়া বৃদ্ধাকে সেখানে পৌছে দেন। বৃদ্ধাশ্রমের পরিচালক মোঃ রফিকুল ইসলামের হাতে তাকে তুলে দেয়া হয়। সহযোগিতা হিসেবে ৫ হাজার টাকা প্রদান করা হয় বৃদ্ধাশ্রয়কে।

ফ্রেন্ডস ক্লাবের প্রতিষ্ঠা সাংবাদিক হালিম সৈকত এর নেতৃত্বে একটি দল নিয়ে যান মহিলাটিকে। দলে সহযাত্রী হিসেবে ছিলেন ফ্রেন্ডস ক্লাবের প্রধান সমন্বয়ক মোঃ সবুজ মিয়া, সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মোঃ জুয়েল রানা, সালাহউদ্দিন সিকদার, ফজিলত বেগম ও সেলিম মিয়া।

উল্লেখ্য গত ২২ সেপ্টেম্বর মাছিমপুর খেলার মাঠেকে বা কারা মহিলাটিকে ফেলে চলে যায়।

পরে নাম পরিচয় বলতে না পারা বৃদ্ধাকে হাসপাতালে প্রেরণ ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ফ্রেন্ডস ক্লাব। তারা তাকে তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

তার সেবা করার জন্য আরও দুজন মহিলাকেও সাথে পাঠানো। ঔষধপত্র, খাবারসহ যাবতীয় প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের ব্যবস্থা করেন সংগঠনটি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকসহ জাতীয় ও আঞ্চলিক পত্রিকায় নিউজ হওয়ার পরও কেউ সন্ধান না করায় তাকে অবশেষে বৃদ্ধাশ্রমে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন ফ্রেন্ডস ক্লাব। ক্লাবটিকে সহযোগিতা করেন তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ পারভেজ হোসেন সরকার ও তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ সরফরাজ হোসেন খান প্রমূখ।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!