সোনাগাজীতে প্রবাসী যুবককে কুপিয়ে আহত করে মন্দিরের পাশে রেখে গেল সন্ত্রাসীরা

জাবেদ হোসাইন মামুন, সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি।।

২১৪

ফেনীর সোনাগাজীতে তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদ (২৯) নামে এক সৌদি প্রবাসী বাংলাদেশী যুবককে কুপিয়ে আহত করে মন্দিরের পাশে রেখে গেল সন্ত্রাসীরা। এতে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের মাঝে চরম আতঙ্ক দেখা দিলেও বড় ধরণের বিপদ থেকে রক্ষা পেয়েছেন বলে দাবি স্থানীয়দের।

ঘটনাটি ঘটেছে গত ২ নভেম্বর রাতে উপজেলার মতিগঞ্জ ইউনিয়নের সাতবাড়িয়া গ্রামের রাঁধা গোবিন্দ মন্দিরের পাশে। আহত যুবক মঙ্গলকান্দি ইউনিয়নের মঙ্গলকান্দি গ্রামের আহমেদ আলী মাঝি বাড়ির সিরাজুল ইসলামের ছেলে। পুলিশ আহত যুবককে উদ্ধার করে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দিয়েছে। পুলিশ ও আহত যুবক এবং তাঁর পরিবারের সদস্যরা জানায়, গত ১ নভেম্বর তৌহিদ দেড় মাসের ছুটিতে সৌদি আরব থেকে তাঁর বাড়িতে আসেন। এর আগে তাঁর ব্যবহৃত ফেসবুক আইডি হ্যাক করে রাজু আহমদ নামে এক যুবক তৌহিদের ফেসবুক আইডিতে আপত্তিকর ছবি পোস্ট করে তাঁর কাছে চাঁদা দাবি করে আসছে । দেশে ফেরার খবর জেনে রাজু নামের ওই হ্যাকার তাঁর কাছে এক লাখ টাকা চাঁদা চাইলে নিজের সম্মান বাঁচাতে সে হ্যাকারকে কিছু টাকা দিতে সম্মত হন। ২ নভেম্বর রাত ৮টার দিকে মুঠোফোনে ডেকে নিয়ে বখতারমুন্সি শেখ শহীদুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজের সামনে থেকে দুটি সিএনজি অটোরিক্সা যোগে ৮ জন সন্ত্রাসী তৌহিদকে অপহরণ করে। সাতবাড়িয়া রাঁধা গোবিন্দ মন্দিরের পেছনে তৌহিদকে চোখ ও মুখ বেঁধে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মৃত ভেবে ফেলে চলে যায়। এসময় সন্ত্রাসীরা তার কাছে থাকা তার সৌদি আরবের ইকামা, নগদ ১৫ হাজার টাকা, ৯০ হাজার টাকা সমপরিমাণের ৩ হাজার ৫০০ সৌদি রিয়াল, একটি মুঠো ফোন, একটি হাতঘড়ি ও একটি টর্চলাইট লুটে নেয়। মন্দির পাহারায় নিয়োজিত হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন তাঁর গোঙানির শব্দ শুনে পুলিশে খবর দিলে রাত ১০টার দিকে তাকে উদ্ধার করে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় আহত তৌহিদ বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দ্রুত বিচার আইনে ৮ সন্ত্রাসীর নামে সোনাগাজী মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন। সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সাজেদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সম্ভাব্য আসামীদের গ্রেফতারে জোর চেষ্টা চলছে। পিন্টু নাথ নামে স্থানীয় এক বাসিন্দা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, যদি কোন কারণে প্রবাসী যুবক মন্দিরের পাশে মারা যেতো তাহলে সোনাগাজীর হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের কি অবস্থা হতো? তাই তিনি দোষীদের চিহ্নিত করে দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানান।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!