সোনাগাজীতে সেতুমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয়ে প্রতারণার দায়ে এক ব্যক্তির চার বছরের কারাদণ্ড

জাবেদ হোসাইন মামুন, সোনাগাজী (ফেনী) প্রতিনিধি।।

১৬৯

ফেনীর সোনাগাজীতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের আত্মীয় পরিচয়ে ১২ লাখ টাকা আত্মসাৎ ও প্রতারণার অভিযোগে এক ব্যক্তির চার বছরের কারাদণ্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। তাঁর নাম আবুল কাশেম ওরফে চীনা কাশেম (৬০)। তিনি উপজেলার চরদরবেশ ইউনিয়নের উত্তর চর সাহাভিখারী গ্রামের বাসিন্দা অজি উল্লাহর ছেলে।

সোমবার (৯ নভেম্বর) ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাকির হোসাইন এ রায় প্রদান করেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি এ সময় আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। পরে তাঁকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

আসামি দীর্ঘদিন ওই এলাকায় নিজেকে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের আত্মীয় পরিচয় দিয়ে আসছিলেন। তাঁকে এলাকার মানুষ চীনা কাশেম হিসেবে চেনেন।
মামলার নথি সূত্রে জানা যায়, আবুল কাশেম একই গ্রামের তরণী কুমার মজুমদারের ছেলে পরেশ চন্দ্র মজুমদারসহ কয়েকজনের কাছ থেকে সোনাগাজীর বিভিন্ন এলাকায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক ও কর্মচারী নিয়োগ দেওয়ার কথা বলে ১২ লাখ টাকা আদায় করেন। পরে চাকরি না দিয়ে ও টাকা ফেরত না দেওয়ায় পরেশ চন্দ্র মজুমদার ২০১৯ সালের ৩০ অক্টোবর ফেনীর আমলি আদালতে একটি মামলা করেন।

আদালত বিষয়টি সোনাগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে তদন্ত করে আদালতে প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশ পেয়ে এ মামলার তদন্ত শেষে ওই বছরের ২৮ নভেম্বর কাশেমকে দোষী উল্লেখ করে প্রতিবেদন প্রদান করেন তৎকালীন সোনাগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অজিৎ দেব। এ মামলায় আদালত সাতজনের সাক্ষ্য গ্রহণের পর সোমবার রায় ঘোষণা করেন। ফেনী জজ আদালতের সহকারী সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) এস এম শহীদ উল্যাহ বলেন, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর আত্মীয় পরিচয় দিয়ে প্রতারণার মামলায় আদালত আবুল কাশেম নামের একজন আসামিকে দণ্ডবিধির ৪০৬ ও ৪২০ ধারায় এ সাজা দেওয়া হয়।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!