সোনারগাঁয়ে অপহরণকারী চক্রের ৪ সদস্য গ্রেপ্তার

নজরুল ইসলাম শুভ, সোনারগাঁ নারায়ণগঞ্জ

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থেকে অপহরণকারী চক্রের মূলহোতাসহ চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব- ১১। মঙ্গলবার(২৭ ডিসেম্বর ) দুপুরে র‌্যাব-১১ সহকারী পুলিশ সুপার মো. রিজওয়ান সাঈদ জিকু স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে সোমবার বিকেলে উপজেলার রাজমনি পিরামিড দাস নোয়গাঁও এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় ভিকটিম রূপগঞ্জের মোগরাকুল গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে আল আমিনসহ তাদের কাছ থেকে চারটি ছোড়া উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের পেরাব এলাকার মো. দুলাল ভূইয়ার ছেলে মো. আবির হাসান, একই এলাকার জহিরুল মোল্লার ছেলে মো. অপু মোল্লা, আবু হানিফ মোল্লার ছেলে রাফিউল ইসলাম দিপ্ত ও ভরৎ গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে মো. রাহাত হাসান মেহেদী।

র‌্যাব জানায়, ঘটনার ভিকটিম মো. আল আমিন একজন মুদি দোকানী। সে দাস নোয়াগাঁও গ্রামে নিজের পৈত্রিক জমি দেখতে গেলে গ্রেপ্তারকৃত আসামিরাসহ আরো ৮-৯ জন দেশীয় অস্ত্রসহ হামলা করে আল আমিনকে গুরুতর জখম করে। ওই সময় আল আমিনের কাছে থাকা নগদ ২১ হাজার টাকা ও স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। তারপর তারা তার পরিবারের কাছে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এ ঘটনায় তার পরিবারের কাছ থেকে নগদ ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ আদায়ও করে। মুক্তিপণের অবশিষ্ট ৯ লাখ টাকা আদায়ের জন্য অপহৃত আল আমিনকে অপহরণ করে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। সে সময় সোনারগাঁয়ের রাজমনি পিরামিড দাস নোয়াগাঁও এলাকায় র‌্যাব-১১ এর একটি টহল দলের দৃষ্টিগোচর হলে তাৎক্ষনিকভাবে অপহরণকারী চক্রের চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় বাকিরা পালিয়ে যায়। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে সোনারগাঁ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

সোনারগাঁ থানার পরিদর্শক তদন্ত মোহাম্মদ আহসানউল্লাহ বলেন, র‌্যাব-১১ একটি মামলা দায়ের করে ৪জন আসামীকে থানায় হস্তান্তর করেছেন। গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!