সোনারগাঁয়ে গৃহবধু ও তার পরিবারের উপর হামলা আহত-৪

নজরুল ইসলাম শুভ, সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) ।।

৩৮৪

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার চেঙ্গাকান্দি গ্রামে গত শুক্রবার রাতে এক গৃহবধু ও তার পরিবারের উপর হামলা চালিয়ে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে স্বামী ও শুশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় দুইটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

থানায় দায়ের করা লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, উপজেলার বারদী ইউনিয়নের চেঙ্গাকান্দি গ্রামের হাসান আলীর ছেলে শফিকুল ইসলামের সঙ্গে পাশ্ববর্তী পাইকপাড়া গ্রামের হযরত আলীর মেয়ে তাছলিমা আক্তারের গত ৯ বছর আগে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তার স্বামী শফিকুল ইসলাম জুয়ারীদের সঙ্গে জুয়ার আসরে মেতে থাকতো। জুয়া খেলার টাকার জন্য শফিকুল তার স্ত্রীকে প্রায় সময়ই মারধর করতো। গত শুক্রবার রাতে জুয়া খেলার জন্য তাছলিমা আক্তারকে তার বাবার বাড়ি থেকে টাকা এনে দেওয়ার জন্য চাপ দেয়। তাছলিমা আক্তার টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায় তার স্বামী শফিকুল ইসলাম ও চাচাতো ভাই ফারুক মিয়া একত্রিত হয়ে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করেন। আহত তাছলিমা আক্তারকে উদ্ধারকে করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

এ দিকে খবর পেয়ে তাছলিমা আক্তারের বাবা, মা ও ভাবী শফিকুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে মারধরের বিষয়টি জানতে চাইলে তাদের মধ্যে শফিকুল ইসলামের কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে তার চাচাতো ভাই ও জুয়া খেলার সঙ্গী ফারুক মিয়া, শাহ জালাল, মোবারক, সুজন, শাহ জাহান, মিলু একত্রিত হয়ে তাছলিমা আক্তারের বাবা হযরত আলী, মা জাহানারা, ভাবী হাছিনা আক্তারকে পিটিয়ে আহত করেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত শফিকুল ইসলাম জানান, এটি একটি পারিবারিক ঘটনা। তবে শুশুর বাড়ির লোকজনকে মারধরের ঘটনার সঙ্গে তিনি জড়িত নন বলে দাবি করেন। সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান জানান, এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। বিষয়টির তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!