সোনারগাঁয়ে বিএনপির পরিচয় গোপন রেখে সেচ্ছাসেবকলীগের পদ পাওয়ার চেষ্টা

নজরুল ইসলাম শুভ,সোনারগাঁ প্রতিনিধি ( নারায়ণগজ্ঞ)

১২৪

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুরে বিএনপি পরিবারের সদস্য মাসুম আহম্মেদের স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারন সম্পাদক হওয়ার খায়েস। তিনি উপজেলার কাঁচপুর ইউনিয়নের মঞ্জুর খোলা এলাকার আফতাব উদ্দিন মোল্লার ছেলে।

এই আফতাব উদ্দিন ছিলেন বিএনপি থেকে নির্বাচিত চেয়ারম্যান ফজল চেয়ারম্যান এর একান্ত ঘনিষ্ঠ সহচর। বিএনপির আমলে তিনি সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন বিএনপির রাজনীতিতে, অপর দিকে মাসুমের মামা আজিজুর রহমান ছিলেন কাঁচপুর ইউনিয়ন বিএনপির ৪ নং ওয়ার্ডের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। তার আপন খালু বিএনপির প্রভাবশালী নেতা আব্দুল মালেক, এখনো তারা বিএনপির রাজনীতিতে সক্রিয় অবস্থানে আছেন আর তাদেরই ছেলে এখন আওয়ামী সেচ্ছাসেবকলীগের সোনারগাঁ উপজেলার সাধারন সম্পাদক পদ পেতে মরিয়া মাসুম আহম্মেদ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জানান, কাঁচপুর ইউনিয়নের স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এবং বর্তমানে উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী মাসুম আহমেদ বিএনপি পরিবারের সন্তান। সে কিভাবে স্বেচ্ছাসেবক লীগে ঠাই পায়।

বিগত বিএনপি-জামাত জোট সরকারের আমলে সোনারগাঁ উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় এবং তার নিজ এলাকা কাঁচপুর আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীদের বিভিন্ন ভাবে অত্যাচার করে তান্ডব চালিয়েছিলো।

এলাকাবাসী জানায়,বিএনপির আমলে তার পরিবার সবাই বিএনপি জামাত রাজনীতির সাথে জড়িত।বিএনপি জামাত সরকার ক্ষমতায় থাকার সময় তারা নিজস্ব বাহিনী গঠণ করে ফজল চেয়ারম্যান এর নেতৃত্বে অনেক তৃণমূল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের নির্যাতন করেছিলো। পরবর্তীতে দেশে আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর কিছুদিন গা-ঢাকা দেয়।

মামা খালুদের বিএনপির পরিচয় গোপন রেখে শরীরে মুজিব কোর্ট জড়িয়ে আওয়ামীলীগের নেতা হওয়ার চেষ্টা করছে।কাঁচপুর ইউনিয়নের যেকোন জায়গায় আওয়ামীলীগের কোন দলীয় কর্মসূচি হলে সে গায়ে মুজিব কোর্ট পড়ে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের সাথে ছবি তুলে নিজেকে আওয়ামীলীগের নেতা হিসেবে জাহির করার চেষ্টা চালায়।

এলাকাবাসী আরও জানান গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তার আত্মীয় স্বজনরা বিএনপির আপেল সাহেবকে এমপি নির্বাচন করার জন্য বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী নিয়ে বিএনপির মনোনয়ন ফরম ক্রয় করে। শীর্ষ পর্যায়ের নেতা আপেলের পক্ষে বিএনপির সংসদ সদস্য হওয়ার মনোনয়ন কিনতে যাওয়া নেতার ছেলে রাতারাতি পরিবর্তন হয়ে স্বার্থের জন্য সুসময়ের কোকিল হয়ে আওয়ামী সেচ্ছাসেবকলীগের সোনারগাঁও উপজেলার সভাপতি প্রার্থী হিসেবে সোনারগাঁয়ের জনগণের কাছে নিজেকে জাহির করছে মাসুম আহম্মেদ। এমন নেক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে ফেসবুকে একের পর এক পোষ্ট করছে স্থানীয় ছাত্রলীগ,যুবলীগ ও আওয়ামীলীগ সহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। যা ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গেছে।
অপরদিকে তার রয়েছে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার,রয়েছে যুব সমাজকে ধংস করার মতো ফেনসিডিল ও ইয়াবা ব্যবসা, দিনে দুপুর কাঁচপুর এলাকার এসএস পাম্পে তার শেল্টারে চলে মাদকের ব্যবসা।

এ বিষয়ে মাসুম আহমেদের মুঠো জানান, আমার বাবা বিএনপির সঙ্গে কোনো সময় জড়িত ছিলনা। আমি বর্তমানে কাচঁপুর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করছি।

এ বিষয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শামসুল ইসলাম ভুইয়া বলেন, তার বাবা বিএনপি করতো কিনা আমার জানা নেই। খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!