সোনারগাঁয়ে ব্যবসায়ীকে অপহরন করে হত্যা চেষ্টা, থানায় মামলা

নজরুল ইসলাম শুভ, সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ)।।

১৭৭

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার শিংলাব এলাকায় আব্দুর রহিম নামে এক ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় ওই ব্যবসায়ীর ছোট ভাই বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসীরা জানান, উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের আন্দারমানিক গ্রামের আব্দুর রহিম একজন ইটের ব্যবসায়ী। তার পাশের গ্রামের আমজাদ হোসেন দীর্ঘ দিন ধরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে গিয়ে চাদাঁ দাবি করে আসছিল। চাদাঁ না দেওয়ায় আমজাদ বাহিনীর লোকজন হামলা চালিয়ে আব্দুর রহিমের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাড়িঘরে ভাংচুর চালায়। এ ঘটনায় আব্দুর রহিম বাদি হয়ে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামিরা সম্প্রতি জামিনে বের হয়ে আসেন। পরে গত শুক্রবার আব্দুর রহিম একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে তার পথরোধ করে আমজাদ হোসেনের নেতৃত্বে হারুন মিয়া, মো: রমজান, নুরনবী, জয়নাল, হানিফ, বাবু মিয়া, হেলাল, শাহ আলম, ওসমান, সোহেল মিয়া সহ ১৫-২০ জনের একটি দল পিস্তল ঠেকিয়ে তুলে নিয়ে গিয়ে একটি নির্জন স্থানে নিয়ে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে কুপিয়ে ও পিটিয়ে বাম হাত, বাম পা ভেঙ্গে গুরুতর জখম করে। পরে খবর পেয়ে তার স্বজনরা তালতলা পুলিশ কেন্দ্রের একদল পুলিশ নিয়ে গিয়ে ব্যবসায়ী আব্দুর রহিমকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় সন্ত্রাসীরা পুলিশ দেখে পালিয়ে যান। এ ঘটনায় গতকাল সোমবার আহতের ছোট ভাই আব্দুল মান্নান বাদি হয়ে সোনারগাঁ থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত আমজাদ হোসেন জানান, এ ঘটনায় আমার লোকজন জড়িত থাকতে পারে। তিনি জড়িত নন বলে দাবি করেন। সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান জানান, এ বিষয়ে থানায় মামলা নেওয়া হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!