হিলিতে আগুনে চারটি ঘরসহ ঘরের সবজিনিসপত্র পুড়ে ছাই নি:স্ব এক পরিবার

হিলি প্রতিনিধি।।

১২৩

দিনাজপুরের হিলিতে আগুনে পুড়ে নিলুফা বেগম নামের এক নারীর বাড়ি পুড়ে গিয়েছে। এসময় আগুনে চারটি ঘর, এসব ঘরে থাকা জিনিসপত্র, ছাগল ও হাস মুরগি সম্পুর্ন পুড়ে গিয়েছে। এতে তিন লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী ভুক্তভোগীর। বৈদ্যতিক শর্ট সার্কিট থেকে এই আগুনের সুত্রপাত বলে জানিয়েছে ফায়ার সার্ভিস।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৩টায় হিলির মধ্যবাসুদেবপুর গ্রামে অবস্থিত ওই নারীর বাসভবনে এই অগ্নিপাতের ঘটনা ঘটে।এদিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারটিকে আর্থিক সহায়তাসহ খাবার বিতরন করেছেন।

নিলুফা বেগম বলেন, আমি টিউবয়েল পাড়ে গোসল করতে যায় এসময় হঠাৎ করে ঘরে আগুন লেগে যায়। আগুনের কারনে কোনকিছু বের করার কোন সুযোগ পাইনি। এসময় ঘরে থাকা ছাগল হাস মুরগীসহ সকল আসবাবপত্রকাপড়চোপড়, চাল, সব পুড়ে শেষ হয়ে গেছে। এসময় বাড়ি ঠিক করার জন্য ২০হাজার টাকা জমির কাগজপত্র সেগুলো সব পুরে গেছে। আমার সব শেষ হয়ে গেছে এখন কোথায় থাকবো আর কিকরবো।

হিলি ফায়ার সার্ভিস স্টেশন অফিসার মিজানুর রহমান বলেন, বিকেলে সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে আমরা এখানে আসি কিন্তু ঘটনাস্থলে ঢুকতে বেশ কিছু প্রতিবন্ধকতা ছিল যার কারনে পৌছাতে খুব বেগ পেতে হয়েছে। পরে আমরা পানি মেড়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনি। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সুত্রপাত হয় পরে তা গ্যাসের লাইনের দিকে চলে যায়। আগুনে চারটি ঘর পুড়ে গেছে সেই সাথে ঘরের আসবাবপত্র থেকে শুরু করে সবকিছু পুড়ে গেছে তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান নির্নয় করা সম্ভব হয়নি।

হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নূর-এ আলম ও উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন উর রশীদ বলেন, আগুন লাগার খবর পাওয়ার সাথে সাথে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। আগুনের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২বান্ডিল টিন, নগদ ৬হাজার টাকা, চাল, শুকনো খাবার, কম্বল দেওয়া হয়েছে।পরবর্তীতে তার যদি আরো কোন সহযোগীতা লাগলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সেটি করা হবে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!