হিলিতে দুদিনের ব্যবধানে দেশীয় কাচামরিচের দাম কমেছে কেজিতে ১৫ থেকে ২০টাকা

বকুল,হিলি প্রতিনিধি।।

২২২

শারদীয় দুর্গাপুজা উপলক্ষ্যে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে বাংলাদেশে কাচামরিচ আমদানি বন্ধ হলেও বাজারে দেশীয় কাচামরিচের সরবরাহ বাড়ায় পণ্যটির দাম কমতে শুরু করেছে। দুদিনের ব্যবধানে কাচামরিচের দাম কমেছে পাইকারী ও খুচরাতে কেজিতে ১৫ থেকে ২০টাকা করে। দুদিন আগেও পাইকারীতে প্রতি কেজি কাচামরিচ ১শ টাকা বিক্রি হলেও বর্তমানে তা কমে বিক্রি হচ্ছে ৮৫টাকা কেজি দরে। আর খুচরাতে ১শ ২০টাকা বিক্রি হলেও বর্তমানে তা বিক্রি হচ্ছে ১শ টাকা কেজি দরে। এদিকে দাম কমায় স্বস্তি ফিরেছে নিন্ম আয়ের মানুষজনের মাঝে।

হিলি বাজারে কাচামরিচ কিনতে আসা শেরেগুল ইসলাম বলেন, দুসপ্তাহ আগে হঠাৎ করেই কাচামরিচের দাম বাড়তে শুরু করে। দাম বাড়তে বাড়তে এমন অবস্থা দাড়িয়ে যায় যে আমাদের মতো নিন্ম আয়ের মানুষজনের কাচামরিচ খাওয়া নাগালের বাহিরে চলে গিয়েছিল। বর্তমানে দাম কিছুটা কমতে শুরু করেছে কাচামরিচের এমন দাম থাকলে আমরা কিনে খেতে পারবো দাম আরো কমলে আমাদের জন্য সুবিধা হতো।

হিলি বাজারের কাচামরিচ বিক্রেতা মাসুদ রানা বলেন, অতিরিক্ত গরম ও বৃষ্টিপাতের কারনে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে কাচামরিচের ফুল ঝড়ে গিয়ে কাচামরিচের উৎপাদন ব্যাহত হয়। এর ফলে বাজারে পণ্যটির সরবরাহ কমায় দাম বাড়তির দিকে হয়ে যায়। দাম বাড়তে বাড়তে ১শ ৫০ থেকে ১শ ৬০টাকায় উঠে যায়। পরবর্তীতে ভারত থেকে কাচামরিচ আমদানি শুরু হলে দাম কমে দেশীয় কাচামরিচ ১শ থেকে ১শ ২০টাকায় নেমে আসে। তবে ইতিমধ্যেই দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে আবারো নতুন মরিচ আসতে শুরু করায় বাজারে দেশীয় কাচামরিচের সরবরাহ বেড়েছে। যার কারনে মোকামে কাচামরিচের দাম কমায় আমরা কম দামে কিনতে পারছি তেমনি কম দামে বিক্রি করতে পারছি। শারদীয় দুর্গাপুজার কারনে গত ১১ অক্টোবর থেকে বন্দর দিয়ে কাচামরিচ আমদানি বন্ধ হলেও দেশের বাজারে কোন প্রভাব পড়েনি দেশিয় কাচামরিচের সরবরাহ বেশী থাকার কারনে। সামনের দিনে দাম আরো কমতে পারে বলেও জানান তিনি।

সাইফুল ইসলাম সুমন,অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!