হিলিতে দেশীয় পেয়াজের দখলে কাচাবাজার কেজিতে দাম কমেছে ৩ টাকা

হিলি প্রতিনিধি।।

৯৫

আমদানির অনুমতি না থাকায় একমাস ধরে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেয়াজ আমদানি বন্ধ রয়েছে। তবে আমদানি বন্ধ ও পুরানো পেয়াজ শেষ হয়ে গেলেও দেশীয় পেয়াজের পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকায় দাম উল্টো আরো কমতে শুরু করেছে। এদিকে দাম কমায় স্বস্তি ফিরেছে নিন্ম আয়ের মানুষের মাঝে।

হিলি বাজারে পেয়াজ কিনতে আসা শরিফুল ইসলাম বলেন, বাজারে বেশ কিছুদিন ধরেই ভারতীয় পেয়াজ নেই আর যখন ছিল তখনো আমরা তুলনামুলক দাম কম থাকায় দেশীয় পেয়াজ কিনেছি। বর্তমানে সব জিনিসের দাম যখন উদ্ধমুখি তখন দেশীয় পেয়াজের দাম কিছুটা কমেছে। এতে করে আমাদের মতো সাধারন মানুষদের বেশ সুবিধা হয়েছে সামনে ঈদে যেন দাম কম থাকে সেই দাবী জানাচ্ছি।

হিলি বাজারের পেয়াজ ব্যবসায়ী বাবুল হোসেন বলেন, বন্দর দিয়ে পেয়াজ আমদানি বন্ধ থাকায় বাজারে ভারতীয় পেয়াজের সরবরাহ একেবারে নেই। তবে বর্তমানে বাজারে দেশীয় পেয়াজের পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকার কারনে ভারতীয় পেয়াজের না থাকার কোন প্রভাব নেই উল্টো পেয়াজের দাম কমতির দিকে রয়েছে। কৃষকরা ভালো দাম পাওয়ায় ক্ষেত থেকে পেয়াজ উঠানো অব্যাহত রয়েছে যার কারনে মোকামগুলোতে পেয়াজের পর্যাপ্ত সররবাহ রয়েছে। যার কারনে আমরা যেমন চাহীদামত পেয়াজ পাচ্ছি তেমনি কম দামে কিনতে পারায় আমরা খানিকটা কম দামে বিক্রি করতে পারছি। পুর্বে প্রতি কেজি দেশীয় পেয়াজ ২৪ থেকে থেকে ৩৩টাকা বিক্রি হলেও বর্তমানে তা থেকে দাম কমে ২৪ থেকে ৩০টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। দেশীয় পেয়াজের পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকায় দাম কমছে সরবরাহ এমন থাকলে দাম আরো কমবে বলে জানিয়েছে ব্যবসায়ীরা।

হিলি স্থলবন্দরের পেয়াজ আমদানিকারক হারুন উর রশীদ বলেন, দেশের বাজারে পেয়াজের সররবাহ স্বাভাবিক রাখতে ও দাম নিয়ন্ত্রনে রাখতে আমরা নিয়মিত ভাবে বন্দর দিয়ে পেয়াজ আমদানি করে আসছি। কিন্তু গত ৫ মে থেকে আমদানির অনুমতি পত্র (আইপি) মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেয়াজ আমদানি বন্ধ রয়েছে। পুর্বের আমদানিকৃত যেসব পেয়াজ আমদানিকারকদের গুদামে ছিল ক্রেতা সংকটের কারনে পেয়াজ কম দামে বিক্রি করতে হয়েছে সেই সাথে কিছু পেয়াজ পচে নষ্ট হয়ে ক্ষতির মুখে পড়েছেন আমদানিকারকরা। আমরা নতুন করে আমদানির অনুমতি পত্র চেয়ে আবেদন করলেও কতৃপক্ষ এখন পর্যন্ত কোন পেয়াজ আমদানির অনুমতি দেয়নি। তবে সামনে যেহেতু মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আযহা এসময়ে দেশে পেয়াজের বাড়তি চাহীদা থাকে সেকারনে সেময়ে সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে ও দাম নিয়ন্ত্রনে রাখতে পেয়াজ আমদানির অনুমতি দেওয়া হোক এই দাবী জানাচ্ছি।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!