হিলিতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানের স্বাক্ষর জালিয়াতি করে কেন্দ্র পরিবর্তনের অভিযোগ

সালাহউদ্দিন বকুল, হিলি প্রতিনিধি।।

১৬৬

দিনাজপুরের হিলিতে পরিক্ষা কেন্দ্র পরিবর্তনের আবেদন না করলেও কেন্দ্র সচিব দ্বারা উপজেলার ৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানের স্বাক্ষর জালিয়াতি করে পরিক্ষা কেন্দ্র পরিবর্তনের অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় ওই চারটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানগন মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের সচিব বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করে ব্যবস্থা গ্রহনের ও পুর্বের কেন্দ্রে পরিক্ষা গ্রহনের ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী করেছেন। এদিকে ওই কেন্দ্র সচিব তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা দাবী করে বোর্ড কর্তৃক কেন্দ্র পরিবর্তন হয়েছে বলে জানিয়েছেন।

ওই চার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানগন স্বাক্ষরিত একটি লিখিত অভিযোগ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের সচিব বরাবর প্রেরন করা হয়। যার অনুলিপি শিক্ষা মন্ত্রনালেয়র মন্ত্রী, দিনাজপুর-৬ আসনের সাংসদ, জেলা প্রশাসক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড দিনাজপুরের চেয়ারম্যান, হাকিমপুর উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর প্রেরন করা হয়।

লিখিত অভিযোগে বলা হয়, উপজেলার পাউশগাড়া স্কুল এন্ড কলেজ, নওপাড়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, নয়ানগড় উচ্চ বিদ্যালয়, বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এই চার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র-ছাত্রীগন নিজ উপজেলা হাকিমপুর (৭৬৫)বাংলা হিলি পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে এসএসসি পরিক্ষায় অংশগ্রহন করে আসছিল। কিন্তু গত ১৮.১০.২১ তারিখে আমরা জানতে পারি আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের এসএসসি পরিক্ষা কেন্দ্র হাকিমপুর(৭৬৫) এর পরিবর্তে সুকৌশলে তা পরিবর্তন করে বিরামপুর উপজেলার কাটলা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র (৭৫৭) করা হয়। এই চার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানগনের পক্ষ থেকে কেন্দ্র পরিবর্তনের জন্য কোথাও কোন আবেদন করা হয় নাই বলে জানানো হয়। বিরামপুরের কাটলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র সচিব নিজ স্বার্থ সিদ্ধির জন্য তাদের স্বাক্ষর জাল জালিয়াতি করে কেন্দ্র পরিবর্তনের জঘন্যতম কাজটি করেছেন। আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে কাটলা উচ্চ বিদ্যালয় অনেক দুরে ও প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে হওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত না হওয়ার কারনে শিক্ষার্থীগনের যথাসময়ে পরিক্ষা কেন্দ্রে উপস্থিত হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। যার কারনে আমাদের শিক্ষার্থীগন ও তাদের অভিভাবকরা নিজ উপজেলা ব্যাতিরেখে অন্য উপজেলাতে গিয়ে পরিক্ষা দিতে অনিচ্ছুক।দুরত্বের বিষয়টি বিবেচনা করে শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের মতামতের উপর গুরুত্ব দিয়ে নিজ উপজেলার পরিক্ষা কেন্দ্র হাকিমপুর (৭৬৫) পরিক্ষা দেওয়ার বিষয়ে শিক্ষার্থীরা স্বাচ্ছন্দ ও নিরাপদ বোধ করছে। তাই এই ৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে পুর্বের কেন্দ্র বাংলাহিলি পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্র হাকিমপুর (৭৬৫)এ এসএসসি পরিক্ষা দেওয়ার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের অনুরোধ জানান।

কাটলা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের সচিব ও প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলাম বলেন, হাকিমপুরের ৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানের স্বাক্ষর জাল জালিয়াতি করে কেন্দ্র পরিবর্তনের যে অভিযোগ তার বিরুদ্ধে করা হয়েছে তা সম্পুর্ন মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহিন। আর বিদ্যালয়ের পরিক্ষা কেন্দ্র পরিবর্তন করে বোর্ড এখানে আমার কোন হাত নেই। আর এই স্কুল থাকলেই কি আর না থাকলেই আমার কোন সুবিধা নেই এটি সম্পুর্ন বোর্ডের বিষয়।

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড দিনাজপুরের চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত দায়ীত্ব) প্রফেসর জহির উদ্দিন বলেন, ওনারা আমার কাছে এসেছিলেন তাদের সাথে আমার কথা হয়েছে। এবিষয়ে তাদেরকে আমি পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক বরাবর দরখাস্ত প্রদানের কথা বলেছিলাম। তারা দরখাস্ত দিয়েছে, এবিষয়ে পরিক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!