হিলি স্থলবন্দরের সড়ক সংস্কারের কাজ দ্রুত বাস্তবায়নের দাবীতে স্মারকলিপি পেশ

হিলি প্রতিনিধি।।

১০৫

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দরের চেকপোষ্ট গেটের শুন্যরেখা হতে মহিলা কলেজ পর্যন্ত সড়কটির বাজেট ও টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পুর্ন হলেও দীর্ঘদিনেও কাজ শুরু না হওয়ায় চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন হিলিবাসী।সড়কটির দ্রুত বাস্তবায়নের দাবীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে হিলি হাকিমপুর নাগরিক কমিটি।

রবিবার সকাল সাড়ে ১১টায় হাকিমপুর উপজেলা পরিষদ চত্বরে হিলি হাকিমপুর নাগরিক কমিটির আহবায়ক শামছুল হুদা খানের নেতৃত্বে কমিটির নেতৃবৃন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নূর-এ আলমের হাতে এই স্মারকলিপি প্রদান করেন। একইসাথে কমিটির পক্ষ থেকে সড়ক ও জনপথ বিভাগ দিনাজপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী, উপজেলা চেয়ারম্যান, মেয়র, ওসি, প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন দপ্তরে স্মারকলিপির অনুলিপি প্রদান করা হয়।

স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়েছে, হিলি স্থলবন্দরের চেকপোষ্ট গেটের শুন্যরেখা থেকে স্থলবন্দর হয়ে মহিলা কলেজ পর্যন্ত প্রধান সড়কটি দিয়ে বিভিন্ন জেলার যানবাহন চলাচলসহ বন্দরের পণ্য আমদানি রফতানিকৃত পণ্যবাহী বাংলাদেশী ও ভারতীয় ট্রাক বন্দরে প্রবেশ ও বাহির হয়। একইসাথে এই পথ দিয়ে হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট দিয়ে পাসপোর্ট যাত্রী পারাপার করে থাকে।এছাড়া উপজেলা, থানা, স্কুল কলেজ, হাসপাতাল, ব্যাংক বীমা, ফায়ারসার্ভিস, হিলি বাসস্টান্ড, সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান জনগুরুত্বপুর্ন এই সড়কটি ব্যবহার করে। কিন্তু রাস্তাটি সরু ও বেহাল অবস্থার কারনে ছাত্র-ছাত্রী, রোগী, ব্যবহারকারীগন, প্রতিনিয়ত যানজট, ধুলাবালিতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে প্রায়ই দুর্ঘটনায় প্রানহানীর ঘটনা ঘটছে। সরকার প্রতিবছর হিলি স্থলবন্দর ও হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট থেকে তিন থেকে ৪শ কোটি টাকা রাজস্ব আহরন করলেও রাস্তাটি সরু ও খানাখন্দ হওয়ার কারনে মারাত্নকভাবে বন্দরের আমদানি রফতানি কার্যক্রম ব্যহাত হচ্ছে যার ফলে সরকার অনেকাংশে রাজস্ব হারাচ্ছে। সড়কটি জগুরুত্বপুর্ন হওয়ায় জয়পুরহাটের এক জনসভায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি হিসেবে এই সড়কটি জয়পুরহাট (হিচমি)-পাচবিবি অংশের কাজ শেষ হলেও গত ২০২০ সালের ২৩শে ফ্রেব্রুয়ারী ভুমি অধিগ্রহনের জন্য ৪ধারা নোটিশ পায়। কিন্তু এর পরে অধিগ্রহনের জন্য আর কোন কার্যক্রম হয়নি বা চিঠিপত্র পাওয়া যায়নি। তবে আমরা জানতে পারি যে রাস্তাটির বাজেট ও টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পুর্ন হয়েছে। কিন্তু কি কারনে এই রাস্তাটি বাস্তবায়ন হচ্ছেনা তা আমরা হিলিবাসী অবগত নয়। আমরা হিলি হাকিমপুর নাগরিক কমিটির পক্ষে দ্রুত ভুমি অধিগ্রহনের মাধ্যমে আমাদের প্রানের দাবী রাস্তাটি বাস্তবায়নের জন্য সরকারের নিকট জোর দাবী জানাচ্ছি।

এসময় সেখানে হিলি হাকিমপুর নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী, যুগ্ম আহবায়ক মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী, হাসান চৌধূরী, গোলাম মোস্তাফিজার রহমান, দপ্তর সম্পাদক খলিলুর রহমান বাবুল, প্রচার সম্পাদক এনামুল হক খান, বীর মুক্তিযোদ্ধা সামসুল ইসলাম, ব্যবসায়ী বাবু মল্লিকসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!