হোটেল ব্যবসার আড়ালে মাদক বিক্রি, প্রতিবাদ করায় যুবককে কুপিয়ে আহত ।

কুমিল্লা প্রতিনিধি।।

৩৭৭

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের সৈয়দপুর এলাকায় সড়কের পাশে হোটেল ব্যবসার আড়ালে মাদক বিক্রি করে আসছে জমজম নামক একটি ট্রাক হোটেল। এ মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় বাড়ীতে ডুকে এক যুবককে কুপিয়ে আহত করেছে মাদক কারবারিরা। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৩ মাদক কারবারিকে গ্রেফতার করেছে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ঘোলপাশা ইউনিয়নের সৈয়দপুর রাস্তার মাথায় জমজম হোটেলে দীর্ঘদিন ধরে মাদক বিক্রি করে আসছে ওই এলাকার মোঃ সালাউদ্দিন, মোঃ সাঈদ, আবদুস সামাদ, মোঃ নূরুল আমিন।

হোটেলের পাশের বাড়ীর যুবক মোঃ ফয়সাল ওই এলাকায় মাদক বিক্রির জন্য নিষেধ করে। এ নিয়ে মাদক কারবারিরা ফয়সালকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছিলো। মঙ্গলবার রাত ৯টার পর মাদক কারবারিরা দেশিয় অস্ত্র নিয়ে ফয়সালের বাড়ীতে প্রবেশ করে অতর্কিত হামলা চালায়।

হামলাকারীরা ফয়সালকে কুপিয়ে মারাত্মক ভাবে জখম করে। এসময় ফয়সালের দুই পা কেটে ফেলার চেষ্টা করে হামলাকীরা। বাড়ীতে থাকা ফয়সালের মা শাহনাজ পারভিন ছেলেকে রক্ষা করতে এগিয়ে আসলে হামলাকরীরা তাকেও পিটিয়ে আহত করে স্বর্ণালংকার ছিনিয়ে নেয়।

আহতদের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকীরা হুমকি-ধমকি দিয়ে চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে চৌদ্দগ্রাম সরকারি হাসপালে নিয়ে যায়। পরে ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য ফয়সালকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

এ ঘটনায় ফয়সালের মা বাদী হয়ে চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, মামলার পর অভিযান চালিয়ে ৩ আসামীকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। বাকী আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!