অটোপাশের চেয়ে এসএসসি পরিক্ষা শুরু হওয়ায় খুশি পরিক্ষার্থীসহ অভিভাবক

সালাহউদ্দিন বকুল, হিলি প্রতিনিধি।।

করোনার কারনে দীর্ঘ দেড়বছরের বেশী সময় বন্ধের পর সারাদেশের ন্যায় দিনাজপুরের হিলিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এসএসসি পরিক্ষা শুরু হয়েছে। এদিকে দীর্ঘদিন পর পরিক্ষা হওয়ায় খুশি পরিক্ষার্থীসহ অভিভাবকরা।

রবিবার সকাল ১০টায় পরিক্ষার নিদ্রিষ্ট সময়ের আগেই ছাত্র-ছাত্রীরা মাস্কপরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিজ নিজ কেন্দ্রে উপস্থিত হন ও যথাসময়ে কেন্দ্রগুলোতে পরিক্ষা শুরু হয়। বাংলাহিলি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, বাংলাহিলি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে প্রথম দিনে পদার্থ বিঙ্গান পরিক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এসএসসি, ভোকেশনাল ও দাখিল মিলিয়ে ১ হাজার ১২৫জন শিক্ষার্থী এই পরিক্ষায় অংশগ্রহন করছেন।

ইফতি আহমেদ নামের এক শিক্ষার্থী বলেন, করোনার কারনে দীর্ঘ দেড়বছরের বেশী সময় ধরে স্কুল বন্ধ ছিলো যার কারনে আমাদের পড়ালেখার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। এর পরেও আমরা বাড়িতে আমাদের পড়ালেখা চালিয়ে গিয়েছি যতটুকু ক্ষতি কাটিয়ে উঠার চেষ্টা করেছি। সম্প্রতি আমাদের স্কুল খুলেছিল যার কারনে আমরা স্কুলে গিয়ে পড়ালেখা শুরু করতে পেরেছি।গতবার তো করোনার কারনে কোন পরিক্ষা হয়নি সবাইকে অটোপাশ দিয়েছে কিন্তু এবারে পরিক্ষা হওয়ায় আমাদের জন্য ভালো হয়েছে। যদিও ৩টি বিষয়ে পরিক্ষা হচ্ছে এতেও আমরা খুশি অন্তত মেধার ভিত্তিতে আমাদের ফলাফল ঘোষনা হবে।

অভিভাবক নাজমা বেগম বলেন, করোনার কারনে দীর্ঘদিন বন্ধের পরিক্ষা হচ্ছে আমাদের ছেলে মেয়েরা পরিক্ষা দিতে পারছে যার কারনে আমাদের খুব আনন্দ লাগছে। গতবারের মতো যদি অটোপাশ দিতো তাহলে আমাদের বাচ্চাদের মেধা যাচাই হতোনা, এখন পরিক্ষা দিতে পারছে যার কারনে মেধা যাচাই হচ্ছে এতে করে আমরা অভিভাবকরা খুব খুশি। করোনার কারনে স্কুল বন্ধ থাকলেও আমরা বাড়িতে যতটুকু পারি তাদের পড়ালেখা চালিয়ে গেছি কি পড়ালেখা তার ফল তো পরিক্ষার মাধ্যমেই যার কারনে পরিক্ষা হওয়ায় আমরা খুশি।

হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নূর-এ আলম বলেন, স্বাস্থ্যবিধিসহ সরকারি অন্যান্য সকল নির্দেশনা মেনে আমরা এসএসসি পরিক্ষার ব্যবস্থা গ্রহন করেছি। সে মোতাবেক এসএসসি পরিক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ছাত্র-ছাত্রীদের মাস্ক পরিধান নিশ্চিত ও তাপমাত্রা পরিমাপ করে পরিক্ষা কেন্দ্রে ঢোকানো হয়েছে।

আহসানুজ্জামান সোহেল/অননিউজ24।।

 

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!