একদিনের ব্যবধানে হিলিতে আবারো বেগুনের দাম কমলো কেজিতে ২০টাকা

হিলি প্রতিনিধি

৮৬

হঠাৎ করে বাজার থেকে বেগুন উধাও হয়ে দাম বৃদ্ধির একদিনের মাথায় আবারো দিনাজপুরের হিলিতে বেগুনের দাম কমেছে কেজিতে ২০টাকা করে। একদিন পুর্বে প্রতিকেজি বেগুন ৮০টাকা বিক্রি হলেও বর্তমানে তা কমে ৬০টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এদিকে দাম কমায় কিছুটা স্বস্তি ফিরলেও পুর্বের দামে ফেরানোর দাবী ক্রেতাদের।

শনিবার সরেজমিন হিলি বাজার ঘুরে দেখা গেছে বাজারের সবকটি সবজির দোকানেই বেগুনের ভালো সরবরাহ রয়েছে। এছাড়া লেবুর দাম হালিপ্রতি ১০টাকা করে কমেছে কয়েকদিন পুর্বে ৩০টাকা হালি বিক্রি হলেও বর্তমানে তা কমে ২০টাকা হালি বিক্রি হচ্ছে। একইসাথে ডিমের দাম পাতাপ্রতি ১০টাকা করে কমেছে দুদিন আগেও ডিমের পাতা বিক্রি হয়েছিল ২৪০টাকা বর্তমানে তা কমে ২৩০টাকা পাতা বিক্রি হচ্ছে। চাহীদার তুলনায় সরবরাহ বাড়ার কারনেই দাম কমেছে বলে দাবী বিক্রেতাদের।

হিলি বাজারে বেগুন কিনতে আসা মিরাজুল ইসলাম বলেন, রমজানে ইফতারিতে বেগুনের চপ খাওয়া হয় যার কারনে এসময় নিয়মিত বেগুন ক্রয় করা হয়। কিন্তু গতকাল হঠাৎ করে ৪০টাকার বেগুন একলাফে বেড়ে ৮০টাকায় উঠে যায়। আবার সবদোকানে বেগুন পাওয়া যাচ্ছিলোনা এতে করে আমাদের মতো মানুষদের সমস্যা হচ্ছিল। আজ অবশ্য অবস্থার কিছুটা পরিবর্তন হয়েছে বাজারে সবদোকানেই বেগুন পাওয়া যাচ্ছে সেই সাথে দাম ২০টাকা কমে ৬০টাকা বিক্রি হচ্ছে। এতে করে কিছুটা সুবিধা হলেও আমরা চাই পুর্বের মতো বেগুনের দাম থাকুক তাতে আমাদের জন্য সুবিধা হয়।

হিলি বাজারের সবজি বিক্রেতা শাহিনুর আলম বলেন, আমরা যে পার্শ্ববর্তী বিরামপুর ও পাচবিবি হাট থেকে বেগুন ক্রয় করি সেই হাটে গতকাল হঠাৎ করেই বেগুনের সরবরাহ ঘাটতি দেখা দেয়। একেতো সরবরাহ কম এর উপর বাহিরের পাইকাররা আসার কারনে তারা বাড়তি দামে বেগুন ক্রয় করে নিয়ে যায় যার কারনে পণ্যটির সরবরাহ কমায় দাম ৪০টাকা থেকে বেড়ে দ্বিগুন ৮০টাকা হয়ে যায়। আজ সেই অবস্থার অনেকটা পরিবর্তন হয়েছে হাটে বেগুনের সররবাহ বেড়েছে যার কারনে একদিনের ব্যবধানে আবারো কেজি প্রতি ২০টাকা করে দাম কমেছে। আমরাও কম দামে কিনতে পারছি যার কারনে কম দামে বিক্রি করছি। সরবরাহ বাড়লে দাম আরো কমবে বলে জানান তিনি।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!