কচুয়ায় এক নারীর জায়গায় বেড়াদানে বাঁধা দেয়ার অভিযোগ

কচুয়া (চাঁদপুর) প্রতিনিধি।।

১৬৪

চাঁদপুরের কচুয়ায় জাহানারা বেগম নামের এক নারীর জায়গার সীমানায় বেড়াদানে বাঁধা দেয়ার অভিযোগ উঠেছে মিজান নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। রোববার সকালে উপজেলার মেঘদাইর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মিজান একই গ্রামের মৃত সেকান্দর আলীর ছেলে। এব্যাপারে রোববার জাহানারা বেগম কচুয়ায় থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

থানায় অভিযোগ সূত্র ও সরেজমিনে জানা যায়, জাহানারা বেগম ২০০৪ সালে মোখলেছুর রহমান গংদের কাছ থেকে সাবেক ৪৮ হালে ৪৯ নং মেঘদাইর মৌজার সাবেক ৭৩ হালে ১৬১/১৬২ নং খতিয়ানে সাবেক ২১২ হালে ৩৪৫ দাগে ৫১ শতকের অন্দরে ০৭ শতক নালিশী ভিটি বাড়ী ভূমি ক্রয় করে ভোগ দখল করে আসছে। রবিবার সকালে ওই জায়গায় জাহানারা বেগম ৫/৬ জন শ্রমিক নিয়ে ওই জায়গাটি হেফাজতের জন্য সীমানায় বেড়া দিতে আসলে মিজান, তার স্ত্রী ও ছেলে এসে বাঁধা প্রদান করে। এতে শ্রমিকদের কাজে ব্যবহৃত মালামাল ছুড়ে পেলে দেয় বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। জাহানারা বেগমের জায়গা জোরপূর্বক বেদখল করার চেষ্টা করছে মিজান। এর আগে কয়েকবার সালিশ বৈঠকও হয়েছে। মিজান সালিশিদের সিদ্ধান্ত মেনে না নিয়ে সে আমার জায়গায় বেড়া দিতে আসলে বাঁধা প্রদান করছে বলে জানিয়েছে ওই নারী।

মিজানের ছেলে মো. হাসান বলেন, এই জায়গায় আমরা ওয়ারিশসূত্রে মালিক। এই জায়গা নিয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। আদালতের রায় আসার আগেই ওনারা জায়গায় বেড়া দিয়ে দখল করতে চাচ্ছে, তাই আমরা বাঁধা দিয়েছি।

এব্যাপারে কচুয়া থানার ওসি মো. মহিউদ্দিন বলেন, জায়গার সমস্যা নিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!