দেবরকে পিটিয়ে মারলেন ভাবী

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি।।

৯৬

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে বসত বাড়ির সীমানা নিয়ে দ্বন্দে ভাবীর লাঠির আঘাতে সাইফুল ইসলাম শারফুল (৪৫) নামে এক যুবকের প্রাণ গেছে।

ঘটনাটি ঘটে উপজেলার পাগলা থানাধীন টাঙ্গাব ইউনিয়নের রৌহা গ্রামে। নিহত শারফুল ওই গ্রামের মৃত সূরুজ আলীর ছেলে। এ ঘটনায় শনিবার সকালে পাগলা থানায় নিহতের স্ত্রী আফরোজা আক্তার বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, রৌহা গ্রামের বুলবুল শেখ ও তার ছোট ভাই সাইফুল ইসলাম শারফুলের মধ্যে বসত বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধ চলছিল। এর জের ধরে শুক্রবার বিকেলে দুই ভাইয়ের মধ্যে বিতন্ডা হয়। এ সময় বুলবুল শেখের স্ত্রী পলি আক্তার অতর্কিতে পেছন থেকে দেবর সাইফুল ইসলামের মাথায় লাঠি দিয়ে সজোরে আঘাত করেন। এতে সাইফুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। পরে প্রতিবেশিরা তাকে মূমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে সেখানে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়ার পথে শনিবার ভোররাতে গাজীপুরের টঙ্গী এলাকায় তিনি মারা যান।

পাগলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাশেদুজ্জামান বলেন, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আসামী গ্রেফতারে কাজ করছে পুলিশ।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!