ময়মনসিংহে অস্টমী স্নানে হাজারো পূণ্যার্থীর ভীড়

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি।।

৯৬

চৈত্র মাসের অষ্টমী তিথিতে ময়মনসিংহের ব্রহ্মপুত্র নদে পুণ্যস্নানে এবার হাজারো হিন্দু ধর্মাবলম্বী ভক্তপ্রাণের আগমন ঘটে। নগরীর কাঁচারীঘাটে এ স্নানকে নিবিঘ্ন করতে সব রকমের ব্যবস্থা নেয় ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশন।

দিনটিকে ঘীরে শনিবার (৯ এপ্রিল) ভোর থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও ছিলো তৎপর। জেলার বেশ কয়েকটি স্থানে ব্রহ্মপুত্র নদে এ পূণ্যস্নানের সমাগম ঘটে। স্নানে অংশ নেয়া ভক্তকূলদের বিশ্বাস এ দিন ব্রহ্মপুত্র নদে স্নান করলে পুণ্যে হবে এবং এ স্নানে বিধাতার সন্তুষ্টি অর্জন করে পাপমোচন হবে।

হিন্দু পুরান মতে জানা যায়, দেবতা পরশুরাম পিতার আদেশে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে মাকে হত্যা করেন। মাকে হত্যার পর কুড়াল পরশুরামের হাতে আটকে যায়। সে তার বাবার কাছে জানতে চায় এর কারন কি? তার বাবা বলে এটা মাতৃহত্যার অভিশাপ। অভিশাপ থেকে রেহাই পেতে সে মুনি-ঋষিদের পরামর্শ নেয়, তখন মুনি-ঋষিদের ধারনামতে পরশুরাম হিমালয়ের সরোবরে স্নান করেন, তখন কুড়াল তার হাত থেকে খসে পড়ে।

এ ঘটনায় স্নানকে পাপমুক্ত হিসাবে দেখে হিন্দু সম্প্রদায়ের পূণ্যার্থীরা। সেই থেকেই হিন্দু সম্প্রদায়ের পূণ্যার্থীরা পাপ মোচনের জন্য অস্টমী তিথীতে ব্রহ্মপুত্র নদে স্নান করে পাপ মোচনের জন্য ।

আরো দেখুনঃ
error: Content is protected !!